bengali-zakaria . mohamed-seddik-el-menchaoui
Nozol : مكية  ,   Other names :
  1. Part
    29
  1. Hizb
    57
  1. Nozol order
    77
  1. Characters count
    1134
  1. Words count
    259
  1. Ayaat count
    52
  1. Pages count
    2
  1. From page
    566
  1. To page
    567

الْحَاقَّةُ

সে অবশ্যম্ভাবী ঘটনা,

Words count : 1 Characters count : 6 الحاقة

مَا الْحَاقَّةُ

কী সে অবশ্যম্ভাবী ঘটনা ?

Words count : 2 Characters count : 8 ما الحاقة

وَمَا أَدْرَاكَ مَا الْحَاقَّةُ

আর কিসে আপনাকে জানাবে সে অবশ্যম্ভাবী ঘটনা কী ?

Words count : 4 Characters count : 16 وما أدراك ما الحاقة

كَذَّبَتْ ثَمُودُ وَعَادٌ بِالْقَارِعَةِ

সামূদ ও ‘আদ সম্প্রদায় মিথ্যারোপ করেছিল ভীতিপ্ৰদ মহাবিপদ সম্পর্কে [১]।

Words count : 4 Characters count : 20 كذبت ثمود وعاد بالقارعة

فَأَمَّا ثَمُودُ فَأُهْلِكُوا بِالطَّاغِيَةِ

অতঃপর সামূদ সম্প্রদায়, তাদেরকে ধ্বংস করা হয়েছিল এক প্ৰলয়ংকর বিপর্যয়কারী প্ৰচণ্ড চীৎকার দ্বারা,

Words count : 4 Characters count : 23 فأما ثمود فأهلكوا بالطاغية

وَأَمَّا عَادٌ فَأُهْلِكُوا بِرِيحٍ صَرْصَرٍ عَاتِيَةٍ

আর ‘আদ সম্প্রদায়, তাদেরকে ধ্বংস করা হয়েছিল এক প্রচণ্ড ঠাণ্ডা ঝঞ্ঝাবায়ু দ্বারা [১] ,

Words count : 6 Characters count : 27 وأما عاد فأهلكوا بريح صرصر عاتية

سَخَّرَهَا عَلَيْهِمْ سَبْعَ لَيَالٍ وَثَمَانِيَةَ أَيَّامٍ حُسُومًا فَتَرَى الْقَوْمَ فِيهَا صَرْعَىٰ كَأَنَّهُمْ أَعْجَازُ نَخْلٍ خَاوِيَةٍ

যা তিনি তাদের উপর প্রবাহিত করেছিলেন সাতরাত ও আটদিন বিরামহীনভাবে; তখন আপনি উক্ত সম্প্রদায়কে দেখতেন--- তারা সেখানে লুটিয়ে পরে আছে সারশূন্য খেজুর কাণ্ডের ন্যায়।

Words count : 15 Characters count : 68 سخرها عليهم سبع ليال وثمانية أيام حسوما فترى القوم فيها صرعى كأنهم أعجاز نخل خاوية

فَهَلْ تَرَىٰ لَهُم مِّن بَاقِيَةٍ

অতঃপর তাদের কাউকেও আপনি বিদ্যমান দেখতে পান কি ?

Words count : 5 Characters count : 16 فهل ترى لهم من باقية

وَجَاءَ فِرْعَوْنُ وَمَن قَبْلَهُ وَالْمُؤْتَفِكَاتُ بِالْخَاطِئَةِ

আর ফির‘আউন, তার পূর্ববর্তীরা এবং উল্টিয়ে দেয়া জনপদ পাপাচারে লিপ্ত ছিল [১]।

Words count : 6 Characters count : 34 وجاء فرعون ومن قبله والمؤتفكات بالخاطئة

فَعَصَوْا رَسُولَ رَبِّهِمْ فَأَخَذَهُمْ أَخْذَةً رَّابِيَةً

অতঃপর তারা তাদের রবের রাসূলকে অমান্য করেছিল, ফলে তিনি তাদেরকে পাকড়াও করলেন --- কঠোর পাকড়াও।

Words count : 6 Characters count : 28 فعصوا رسول ربهم فأخذهم أخذة رابية

إِنَّا لَمَّا طَغَى الْمَاءُ حَمَلْنَاكُمْ فِي الْجَارِيَةِ

যখন জলোচ্ছ্বাস হয়েছিল নিশ্চয় তখন আমরা তোমাদেরকে আরোহণ করিয়েছিলাম নৌযানে,

Words count : 7 Characters count : 30 إنا لما طغى الماء حملناكم في الجارية

لِنَجْعَلَهَا لَكُمْ تَذْكِرَةً وَتَعِيَهَا أُذُنٌ وَاعِيَةٌ

আমরা এটা করেছিলাম তোমাদের শিক্ষার জন্য এবং এজন্যে যে, যাতে শ্রুতিধর কান এটা সংরক্ষণ করে।

Words count : 6 Characters count : 29 لنجعلها لكم تذكرة وتعيها أذن واعية

فَإِذَا نُفِخَ فِي الصُّورِ نَفْخَةٌ وَاحِدَةٌ

অতঃপর যখন শিংগায় [১] ফুঁক দেয়া হবে ---একটি মাত্ৰ ফুঁক [২] ,

Words count : 6 Characters count : 23 فإذا نفخ في الصور نفخة واحدة

وَحُمِلَتِ الْأَرْضُ وَالْجِبَالُ فَدُكَّتَا دَكَّةً وَاحِدَةً

আর পর্বতমালা সহ পৃথিবী উৎক্ষিপ্ত হবে এবং মাত্র এক ধাক্কায় ওরা চুৰ্ণ-বিচূর্ণ হয়ে যাবে।

Words count : 6 Characters count : 30 وحملت الأرض والجبال فدكتا دكة واحدة

فَيَوْمَئِذٍ وَقَعَتِ الْوَاقِعَةُ

ফলে সেদিন সংঘটিত হবে মহাঘটনা,

Words count : 3 Characters count : 17 فيومئذ وقعت الواقعة

وَانشَقَّتِ السَّمَاءُ فَهِيَ يَوْمَئِذٍ وَاهِيَةٌ

আর আসমান বিদীর্ণ হয়ে যাবে ফলে সেদিন তা দুর্বল-বিক্ষিপ্ত হয়ে পড়বে।

Words count : 5 Characters count : 25 وانشقت السماء فهي يومئذ واهية

وَالْمَلَكُ عَلَىٰ أَرْجَائِهَا ۚ وَيَحْمِلُ عَرْشَ رَبِّكَ فَوْقَهُمْ يَوْمَئِذٍ ثَمَانِيَةٌ

আর ফেরেশ্তাগণ আসমানের প্রান্ত দেশে থাকবে এবং সেদিন আটজন ফিরিশ্তা আপনার রবের ‘আর্শকে ধারণ করবে তাদের উপরে।

Words count : 9 Characters count : 43 والملك على أرجائها ويحمل عرش ربك فوقهم يومئذ ثمانية

يَوْمَئِذٍ تُعْرَضُونَ لَا تَخْفَىٰ مِنكُمْ خَافِيَةٌ

সেদিন উপস্থিত করা হবে তোমাদেরকে এবং তোমাদের কোন গোপনই আর গোপন থাকবে না।

Words count : 6 Characters count : 26 يومئذ تعرضون لا تخفى منكم خافية

فَأَمَّا مَنْ أُوتِيَ كِتَابَهُ بِيَمِينِهِ فَيَقُولُ هَاؤُمُ اقْرَءُوا كِتَابِيَهْ

তখন যাকে তার ‘আমলনামা তার ডান হাতে দেয়া হবে, সে বলবে, ‘লও, আমার ‘আমলনামা পড়ে দেখ [১] ;

Words count : 9 Characters count : 42 فأما من أوتي كتابه بيمينه فيقول هاؤم اقرءوا كتابيه

إِنِّي ظَنَنتُ أَنِّي مُلَاقٍ حِسَابِيَهْ

‘আমি দৃঢ়বিশ্বাস করতাম যে, আমাকে আমার হিসেবের সম্মুখীন হতে হবে।’

Words count : 5 Characters count : 20 إني ظننت أني ملاق حسابيه

فَهُوَ فِي عِيشَةٍ رَّاضِيَةٍ

কাজেই সে যাপন করবে সন্তোষজনক জীবন;

Words count : 4 Characters count : 14 فهو في عيشة راضية

فِي جَنَّةٍ عَالِيَةٍ

সুউচ্চ জান্নাতে

Words count : 3 Characters count : 10 في جنة عالية

قُطُوفُهَا دَانِيَةٌ

যার ফলরাশি অবনমিত থাকবে নাগালের মধ্যে।

Words count : 2 Characters count : 11 قطوفها دانية

كُلُوا وَاشْرَبُوا هَنِيئًا بِمَا أَسْلَفْتُمْ فِي الْأَيَّامِ الْخَالِيَةِ

বলা হবে, ‘পানাহার কর তৃপ্তির সাথে, তোমরা অতীত দিনে যা করেছিলে তার বিনিময়ে।’

Words count : 8 Characters count : 40 كلوا واشربوا هنيئا بما أسلفتم في الأيام الخالية

وَأَمَّا مَنْ أُوتِيَ كِتَابَهُ بِشِمَالِهِ فَيَقُولُ يَا لَيْتَنِي لَمْ أُوتَ كِتَابِيَهْ

কিন্তু যার ‘আমলনামা তার বাম হাতে দেয়া হবে, সে বলবে, ‘হায়! আমাকে যদি দেয়াই না হত আমার ‘আমলনামা,

Words count : 11 Characters count : 44 وأما من أوتي كتابه بشماله فيقول يا ليتني لم أوت كتابيه

وَلَمْ أَدْرِ مَا حِسَابِيَهْ

আর আমি যদি না জানতাম আমার হিসেব !

Words count : 4 Characters count : 14 ولم أدر ما حسابيه

يَا لَيْتَهَا كَانَتِ الْقَاضِيَةَ

‘হায়! আমার মৃত্যুই যদি আমার শেষ হত !

Words count : 4 Characters count : 19 يا ليتها كانت القاضية

مَا أَغْنَىٰ عَنِّي مَالِيَهْ ۜ

‘আমার ধন-সম্পদ আমার কোন কাজেই আসল না।

Words count : 4 Characters count : 14 ما أغنى عني ماليه

هَلَكَ عَنِّي سُلْطَانِيَهْ

‘আমার ক্ষমতাও বিনষ্ট হয়েছে।’

Words count : 3 Characters count : 13 هلك عني سلطانيه

خُذُوهُ فَغُلُّوهُ

ফেরেশ্তাদেরকে বলা হবে, ‘ধর তাকে, তার গলায় বেড়ী পরিয়ে দাও।

Words count : 2 Characters count : 9 خذوه فغلوه

ثُمَّ الْجَحِيمَ صَلُّوهُ

‘তারপর তোমরা তাকে জাহান্নামে প্ৰবেশ করিয়ে দগ্ধ কর।

Words count : 3 Characters count : 12 ثم الجحيم صلوه

ثُمَّ فِي سِلْسِلَةٍ ذَرْعُهَا سَبْعُونَ ذِرَاعًا فَاسْلُكُوهُ

‘তারপর তাকে শৃংখলিত কর এমন এক শেকলে যার দৈর্ঘ্য হবে সত্তর হাত’ [১] ,

Words count : 7 Characters count : 31 ثم في سلسلة ذرعها سبعون ذراعا فاسلكوه

إِنَّهُ كَانَ لَا يُؤْمِنُ بِاللَّهِ الْعَظِيمِ

নিশ্চয় সে মহান আল্লাহ্র প্রতি ঈমানদার ছিল না,

Words count : 6 Characters count : 23 إنه كان لا يؤمن بالله العظيم

وَلَا يَحُضُّ عَلَىٰ طَعَامِ الْمِسْكِينِ

আর মিসকীনকে অন্নদানে উৎসাহিত করত না,

Words count : 5 Characters count : 20 ولا يحض على طعام المسكين

فَلَيْسَ لَهُ الْيَوْمَ هَاهُنَا حَمِيمٌ

অতএব এ দিন তার কোন সুহৃদ থাকবে না,

Words count : 5 Characters count : 20 فليس له اليوم هاهنا حميم

وَلَا طَعَامٌ إِلَّا مِنْ غِسْلِينٍ

আর কোন খাদ্য থাকবে না ক্ষত নিঃসৃত স্রাব ছাড়া,

Words count : 5 Characters count : 17 ولا طعام إلا من غسلين

لَّا يَأْكُلُهُ إِلَّا الْخَاطِئُونَ

যা অপরাধী ছাড়া কেউ খাবে না।

Words count : 4 Characters count : 18 لا يأكله إلا الخاطئون

فَلَا أُقْسِمُ بِمَا تُبْصِرُونَ

অতএব আমি কসম করছি তার, যা তোমরা দেখতে পাও,

Words count : 4 Characters count : 16 فلا أقسم بما تبصرون

وَمَا لَا تُبْصِرُونَ

এবং যা তোমরা দেখতে পাওনা তারও;

Words count : 3 Characters count : 11 وما لا تبصرون

إِنَّهُ لَقَوْلُ رَسُولٍ كَرِيمٍ

নিশ্চয় এ কুরআন এক সম্মানিত রাসূলের (বাহিত) বাণী [১]।

Words count : 4 Characters count : 15 إنه لقول رسول كريم

وَمَا هُوَ بِقَوْلِ شَاعِرٍ ۚ قَلِيلًا مَّا تُؤْمِنُونَ

আর এটা কোন কবির কথা নয়; তোমরা খুব অল্পই ঈমান পোষণ করে থাক,

Words count : 7 Characters count : 26 وما هو بقول شاعر قليلا ما تؤمنون

وَلَا بِقَوْلِ كَاهِنٍ ۚ قَلِيلًا مَّا تَذَكَّرُونَ

এটা কোন গণকের কথাও নয়, তোমরা অল্পই উপদেশ গ্ৰহণ কর।

Words count : 6 Characters count : 24 ولا بقول كاهن قليلا ما تذكرون

تَنزِيلٌ مِّن رَّبِّ الْعَالَمِينَ

এটা সৃষ্টিকুলের রবের কাছ থেকে নাযিলকৃত।

Words count : 4 Characters count : 17 تنزيل من رب العالمين

وَلَوْ تَقَوَّلَ عَلَيْنَا بَعْضَ الْأَقَاوِيلِ

তিনি যদি আমাদের নামে কোন কথা রচনা করে চালাতে চেষ্টা করতেন,

Words count : 5 Characters count : 23 ولو تقول علينا بعض الأقاويل

لَأَخَذْنَا مِنْهُ بِالْيَمِينِ

তবে অবশ্যই আমরা তাকে পাকড়াও করতাম ডান হাত দিয়ে [১] ,

Words count : 3 Characters count : 16 لأخذنا منه باليمين

ثُمَّ لَقَطَعْنَا مِنْهُ الْوَتِينَ

তারপর অবশ্যই আমরা কেটে দিতাম তার হৃদপিণ্ডের শিরা,

Words count : 4 Characters count : 17 ثم لقطعنا منه الوتين

فَمَا مِنكُم مِّنْ أَحَدٍ عَنْهُ حَاجِزِينَ

অতঃপর তোমাদের মধ্যে এমন কেউই নেই, যে তাঁকে রক্ষা করতে পারে।

Words count : 6 Characters count : 21 فما منكم من أحد عنه حاجزين

وَإِنَّهُ لَتَذْكِرَةٌ لِّلْمُتَّقِينَ

আর এ কুরআন মুত্তাকীদের জন্য অবশ্যই এক উপদেশ।

Words count : 3 Characters count : 17 وإنه لتذكرة للمتقين

وَإِنَّا لَنَعْلَمُ أَنَّ مِنكُم مُّكَذِّبِينَ

আর আমরা অবশ্যই জানি যে, তোমাদের মধ্যে মিথ্যা আরোপকারী রয়েছে।

Words count : 5 Characters count : 21 وإنا لنعلم أن منكم مكذبين

وَإِنَّهُ لَحَسْرَةٌ عَلَى الْكَافِرِينَ

আর এ কুরআন নিশ্চয়ই কাফিরদের অনুশোচনার কারণ হবে,

Words count : 4 Characters count : 20 وإنه لحسرة على الكافرين

وَإِنَّهُ لَحَقُّ الْيَقِينِ

আর নিশ্চয় এটা সুনিশ্চিত সত্য।

Words count : 3 Characters count : 13 وإنه لحق اليقين

فَسَبِّحْ بِاسْمِ رَبِّكَ الْعَظِيمِ

অতএব আপনি আপনার মহান রবের নামের পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করুন।

Words count : 4 Characters count : 17 فسبح باسم ربك العظيم